এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি ২০২০

এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি ২০২০ প্রকাশিত হয়েছে। এইচ এস সি পরীক্ষার ফরমপূরণে সময় ১০ জানুয়ারী পর্যন্ত বাড়লো । ২০২০ সালের এইচএসসি/ডিআইবিএস পরীক্ষার ফরম পূরণ সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। এই সময় আগামী ২৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। HSC Exam Form Fill Up Notice 2020 Has Been Published On Daily Result BD Website.

এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০২০ সালের এইচএসি/ডিআইবিএস পরীক্ষায় ‘সোনালী সেবার’ মাধ্যমে ১০০ (একশত) টাকা বিলম্ব ফিসহ আবেদন ফরম পূরণের সময় ১২/১২/২০১৯ থেকে ২৯/১২/২০১৯ পর্যন্ত পুনঃনির্ধারণ করা হলো।২০১৯ সালের এইচএসসি/ডিআইবিএস পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় বাড়ানো হয়েছে। আগামী ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ফরমপূরণ করা যাবে।

এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি ২০২০

শিক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি ২০২০

২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীসহ ২০১৯ সালের পরীক্ষায় অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীদের আগামী ১২ ডিসেম্বর থেকে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিলম্ব ফি ছাড়া অনলাইনে ফরম পূরণ করতে পারবেন। বিলম্ব ফিসহ ২৪ ডিসেম্বর থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত এইচএসসির ফরম পূরণ করা যাবে। বিলম্ব ফি ছাড়া অনলাইনে ফি ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত জমা দেয়া যাবে। ১০০ টাকা বিলম্ব ফিসহ ২৪ থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ফি জমা দেয়া যাবে বলে ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে ঢাকা বোর্ড। এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের সর্বোচ্চ ফি ২৫শ’ টাকা

এইচএসসি পরীক্ষার ফি বাবদ পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে পত্রপ্রতি ১০০ টাকা, ব্যবহারিকের ফি বাবদ পত্রপ্রতি ২৫ টাকা, একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টের ফি বাবদ পরীক্ষার্থী প্রতি ৫০ টাকা, মূল সনদ বাবদ ১০০ টাকা, বয়েজ স্কাউট ও গার্লস গাইড ফি বাবদ ১৫ টাকা এবং জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ফি বাবদ পরীক্ষার্থীপ্রতি ৫ টাকা নেয়া হবে। এছাড়া অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীপ্রতি ১০০ টাকা অনিয়মিত ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। কেন্দ্র ফি বাবদ প্রতি পরীক্ষার্থীকে ৪০০টাকা ও ব্যবহারিক পরীক্ষার ফি বাবদ পরীক্ষার্থীদের পত্র প্রতি ২৫ টাকা দিতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে এইচএসসি পরীক্ষার ফরমপূরণের বিস্তারিত প্রক্রিয়া তুলে ধরেছে ঢাকা বোর্ড। বিজ্ঞপ্তিতে এইচএসসির কোন শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের কোন সিলেবাস থেকে কী পদ্ধতির প্রশ্ন করা হবে তাও জানিয়েছে ঢাকা বোর্ড।

উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষা আগামী ২ এপ্রিল শুরু হবে। চলবে ১৩ মে পর্যন্ত। ১ এপ্রিল সরকারি ছুটি হওয়ায় একদিন পিছিয়ে পরীক্ষার রুটিন তৈরি করা হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মন্ত্র্যণালয় সূত্র জানায়, এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা আয়োজনে চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড বা ঢাকা শিক্ষা বোর্ড থেকে পরীক্ষার রুটিন তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। তবে প্রস্তাবিত রুটিনের সময়সূচি এক বা দুদিন আগে পিছে করা হতে পারে।

ঢাকা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, এবার কম্পিউটার বিষয়ে আলাদাভাবে পরীক্ষা আয়োজন করা হবে না। আইসিটি বিষয়ের মধ্যে কম্পিউটার বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ কারণে প্রতি বছর এ পরীক্ষা মোট ৪৪ দিন ধরে আয়োজিত হলেও এবার দুদিন কমিয়ে ৪২ দিন পর্যন্ত চলবে এইচএসসি পরীক্ষা।

জানা গেছে, এ বছর ঢাকা বোর্ডে মোট ৫৮টি কেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছর ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়ে থাকে। কিন্তু এবার সেদিন স্টার সানডে হওয়ায় পরীক্ষার রুটিন একদিন পিছিয়ে তৈরি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

Related Content