শিক্ষামন্ত্রী হিসাবে শপথ বাক্য পাঠ করলেন ডা. দিপু মনি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন ডা. দীপু মনি। ডা. দীপু মনি সোমবার বিকেল ৩ টা ৪৮ মিনিটে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মন্ত্রিদের শপথ বাক্য পাঠ করান।


শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিসহ ২৪ জন মন্ত্রী,১৯ জন প্রতিমন্ত্রী এবং ৩ জন উপমন্ত্রী শপথ নেন। শিক্ষামন্ত্রী টেবিলে বসে শপথবাক্যে স্বাক্ষর প্রদান করেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

আরও পড়ুন: জেনে নিন ডা. দিপু মনি সম্পর্কিত অজানা তথ্য

বিকাশ একাউন্টে ফ্রি ১৫০ টাকা বোনাস নিয়ে নিন !!নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস Bkash App Download Link

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে চাঁদপুর-৩ আসন (চাঁদপুর সদর-হাইমচর) থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন ডা. দীপু মনি। নৌকা প্রতীকের এই প্রার্থী পেয়েছেন ৩,০৬,৮৯৫ ভোট।

বিপুল ভোটে জয়ী আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদককে শিক্ষামন্ত্রী করা হয়েছে।এতদিন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন নুরুল ইসলাম নাহিদ।

দেশের প্রথম নারী শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ১৯৬৫ খ্রিস্টাব্দের ৮ ডিসেম্বর ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা এম এ ওয়াদুদ ও মাতা রহিমা ওয়াদুদ। এম এ ওয়াদুদ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জন্মকালীন সদস্য, ভাষা আন্দোলনের বীর সৈনিক এবং তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের কাউন্সিলে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

ডা. দীপু মনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস এবং ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন থেকে আইন বিষয়ে লেখাপড়া ও ডিগ্রি অর্জন করেন। ডা. দীপু মনি ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রাপ্ত হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রথম মহিলা পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব প্রাপ্ত হন।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা ৩য় শ্রেণি সরকারি কর্মচারী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো: খুররম মোল্লা ও মহাসচিব মো: জাকির হোসেন মল্লিক, বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষা সরকারি কর্মচারী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো: জাহাঙ্গীর হোসেন ও মহাসচিব মো: জাকির হোসেন এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো: বদিউজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক কাবুল হোসেন মোল্ল্যা।

শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পরই নতুন শিক্ষামন্ত্রীকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছে এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ইরাব)।

পাশাপাশি নতুন শিক্ষামন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষক সমিতির মহাসচিব কাজী মোখলেছুর রহমান, বাংলাদেশ জেনারেল টিচার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. হারুন অর রশিদ।

উল্লেখ্য, এর আগে ডা. দীপু মনি ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হলে তাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয়।

২০১৪ সালে ফের এমপি হন দীপু মনি।তবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সর্বশেষ মন্ত্রিসভায় তার ঠাই হয়নি।বিষয়টি তখনকার রাজনীতিতে চমক হিসেবে দেখা হচ্ছিল।

ডা. দীপু মনির জন্ম ১৯৬৫ সালের ৮ ডিসেম্বর। তিনি বহুদিন ধরে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলে তিনি পুনরায় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হন।

Related Content