যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল

যবিপ্রবি ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ২০২০ প্রকাশিত হয়েছে। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (ইঞ্জিনিয়ারিং/সম্মান/প্রফেশনাল) শ্রেণির প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আসন বিন্যাস প্রকাশ করা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষায় এ বছর প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৪৭ জন শিক্ষার্থী।

ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ‘এ’ ইউনিট, দুপুর সাড়ে ১২ থেকে ২টা পর্যন্ত ‘বি’ ইউনিট এবং বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ২২ নভেম্বর শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ‘ডি’ ইউনিট, বেলা ১১টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ‘ই’ ইউনিট এবং বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ‘এফ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা শেষে আগামী ২৩ নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে ২৭ নভেম্বর থেকে। আর একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ওরিয়েন্টশন ও ক্লাস শুরু হবে ৫ জানুয়ারি ২০২০ সালে।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের যবিপ্রবি ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল

বিকাশ একাউন্টে ফ্রি ১৫০ টাকা বোনাস নিয়ে নিন !!নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস Bkash App Download Link

যবিপ্রবি ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ও ভর্তি পরীক্ষার আসনবিন্যাস সংক্রান্ত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ( https://admission.just.edu.bd/ অথবা www.just.edu.bd) প্রকাশ করা হয়েছে। এ ছাড়া গুগল প্লে স্টোর থেকে Admission Aid, JUST অ্যাপস ডাউনলোড করেও Jashore University of Science and Technology Admsission Result ভর্তি পরীক্ষার আসন বিন্যাস সংক্রান্ত তথ্য জানা যাবে।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ছয়টি ইউনিটের মধ্যে ‘এ’ ইউনিটের ২৪৫টি আসনের বিপরীতে ১৪ হাজার ১৮৫ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলেন ৯ হাজার ৭০২ জন। পাশের হার ৯.৯৭ শতাংশ। ‘বি’ ইউনিটের ১৯০টি আসনের বিপরীতে ১২ হাজার ৪০১ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলেন আট হাজার ৯৯৭ জন। পাশের হার ১৯.৯৮ শতাংশ। ‘সি’ ইউনিটের ২৫৫টি আসনের বিপরীতে ৯ হাজার ২০১ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলেন ৬ হাজার ৭৫৪ জন। পাশ করেন ৩ হাজার ৬২৩ জন। পাশের হার ৫৩.৬৪ শতাংশ। ‘ডি’ ইউনিটের ৪০টি আসনের বিপরীতে ৩ হাজার ৪৩৫ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। এর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ২ হাজার ১৮৫ জন। পাশ করেন ৬৩ জন। পাশের হার ২.৮৮ শতাংশ। ‘ই’ইউনিটের ২৫টি আসনের বিপরীতে ৯৯২ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। তাদের মধ্যে ৬৮৩ জন উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে পাশ করেন ৩০৫ জন। পাশের হার ৪৪.৬৫ শতাংশ। ‘এফ’ ইউনিটের ১৫৫টি আসনের বিপরীতে ২ হাজার ৯৬৮ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ২ হাজার ৪৪ জন। পাশ করেন ৫২১ জন। পাশের হার ২৫.৪৮ শতাংশ।

ভর্তি পরীক্ষায় ছয়টি অনুষদের মধ্যে ‘এ’ ইউনিটের ২৪৫টি আসনের বিপরীতে ১৪ হাজার ১৮৫ জন শিক্ষার্থী, ‘বি’ ইউনিটের ১৯০টি আসনের বিপরীতে ১২ হাজার ৪০১ জন শিক্ষার্থী, ‘সি’ ইউনিটের ২৫৫টি আসনের বিপরীতে ৯ হাজার ২০১ জন শিক্ষার্থী, ‘ডি’ ইউনিটের ৪০টি আসনের বিপরীতে ৩ হাজার ৪৩৫ জন শিক্ষার্থী, ‘ই’ ইউনিটের ২৫টি আসনের বিপরীতে ৯৯২ জন শিক্ষার্থী এবং ‘এফ’ ইউনিটের ১৫৫টি আসনের বিপরীতে ২ হাজার ৯৬৮ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। ছয়টি ইউনিটে ৯১০ আসনের বিপরীতে মোট ৪৩ হাজার ১৮২ জন আবেদন করেছে। অর্থাৎ প্রতি আসনের বিপরীতে ৪৭ জন ভর্তিচ্ছু পরীক্ষায় অংশ নেবে।

এ বছর বিশ্ববিদ্যালসহ যশোরের মোট নয়টি কেন্দ্রে এ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রগুলো হলো- যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবন ও লাইব্রেরি ভবন, সরকারি এম এম কলেজ, সরকারি সিটি কলেজ, যশোর শিক্ষা বোর্ড মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ডা. আব্দুর রাজ্জাক মিউনিসিপ্যিাল কলেজ, যশোর সরকারি মহিলা কলেজ, যশোর পলিটেকনিক ইনসটিটিউট, সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, কাজী নজরুল ইসলাম কলেজ, সাতমাইল যশোর।

Related Content