খোলার প্রস্তুতি নিচ্ছে স্কুল–কলেজগুলো

স্কুল–কলেজগুলো খোলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।
প্রতিষ্ঠানগুলোও নিজেদের সুবিধামতো প্রস্তুতি নিচ্ছে। করোনা সংক্রমণের কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ছুটি চলছে। দীর্ঘ ছুটির কারণে শিক্ষার্থীরা মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছে। সরকারি-বেসরকারি স্কুল, এনজিও পরিচালিত স্কুল ও কিন্ডারগার্টেন মিলিয়ে দেশের প্রাথমিক স্তরে মোট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১ লাখ ২৯ হাজার ২৫৮টি। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র–ছাত্রী প্রায় ২ কোটি, আর ২০ হাজার ৬৬০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পড়ে ১ কোটি ৩ লাখের বেশি শিক্ষার্থী। এ ছাড়া ৪ হাজার ৫৫১টি কলেজে শিক্ষার্থী প্রায় ৪৪ লাখ। দেশের ৯ হাজার ২৭৮টি আলিয়া মাদ্রাসায় পড়ে প্রায় ২৫ লাখ শিক্ষার্থী।

সরকারি সিদ্ধান্তে ৩০ মার্চ থেকে দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। তবে শুরুতে সব শ্রেণির ক্লাস প্রতিদিন হবে না। প্রথমে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের দ্বাদশ, মাধ্যমিক পর্যায়ে দশম এবং প্রাথমিকের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন (সপ্তাহে ছয় দিন) ক্লাস হবে। আর শুরুর দিকে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে এক দিন ক্লাস হবে। নবম ও একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে দুদিন করে ক্লাস হবে, আর প্রাক্-প্রাথমিকের ক্লাস আপাতত বন্ধই থাকছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) জানিয়েছে, ১০ মার্চের মধ্যে প্রস্তুতির বিষয়ে তথ্য দিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাদের কাছে তিন ধরনের তথ্য চাওয়া হয়েছে। প্রথমত, প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে কি না, দ্বিতীয়ত ৩০ মার্চের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে পারবে কি না এবং তৃতীয়ত ২৯ মার্চের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে না পারলে তার কারণগুলো জানাতে বলা হয়েছে।

বিকাশ এপ ডাউনলোড করে লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস, সাথে ৫০ টাকা বোনাস একদম ফ্রী - Bkash App Download Link শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে DailyResultBD এর ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

মাউশির মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, তাঁরা এখন প্রস্তুতির ওপরই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। তিনি নিজেই প্রতি সপ্তাহে দেশের বিভিন্ন এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাচ্ছেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর প্রস্তুতির পাশাপাশি ১০ মার্চের মধ্যেই শিক্ষকদের টিকা গ্রহণ করতে বলা হয়েছে।

স্কুল-কলেজ ৩০ মার্চ খুললেও বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ২৪ মে থেকে। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আগেই স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে অনেকের মধ্যে নানা প্রশ্ন উঠেছে। অবশ্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে একসঙ্গে অসংখ্য শিক্ষার্থী থাকায় এখনই হল খুলতে চাচ্ছে না সরকার। ১ লাখ ৩০ হাজার আবাসিক শিক্ষার্থীকে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে চায় সরকার।

Related Content
DailyResultBD এর শিক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel