জেএসসি-জেডিসি’র সোমবারের পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়েছে

জেএসসি-জেডিসি’র সোমবারের পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় ‌বুলবুলের কারণে সোমবারের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এর আগে শনিবারের জেএসসি-জেডিসি’র পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়।

শনিবার দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের Daily Result BDকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের কারণে সারাদেশের ১১ নভেম্বর সোমবারের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত হওয়া পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।

জেএসসি-জেডিসি’র সোমবারের পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়েছে

বিকাশ একাউন্টে ফ্রি ১৫০ টাকা বোনাস নিয়ে নিন !!নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস Bkash App Download Link

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষাও পেছানো হয়েছে। পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী জেএসসি পরীক্ষাটি হবে ১৩ নভেম্বর। আর জেডিসি পরীক্ষাটি হবে ১৬ নভেম্বর।শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আবুল খায়ের গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট- জেএসসির বিজ্ঞান এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট- জেডিসির ইংরেজি বিষয়ের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল।প্রসঙ্গত, এর আগে শনিবারের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। পরবর্তীতে এ পরীক্ষাটি ১২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে, শনিবার সকাল ১০টা থেকে জেএসসির গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। নতুন সময়সূচী অনুযায়ী আগামী ১২ নভেম্বর মঙ্গলবার একই সময়ে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।অন্যদিকে, সকাল ১০টা থেকে জেডিসিতেও ইংরেজি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তা স্থগিত হওয়ায় এ পরীক্ষা আগামী ১৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার একই সময় থেকে শুরু হবে।

গত ২ নভেম্বর থেকে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু হয়। এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২৬ লাখ ৬১ হাজার ৬৮২ জন। এরমধ্যে ছাত্র ১২ লাখ ২১ হাজার ৬৯৫ জন ও ছাত্রী ১৪ লাখ ৩৯ হাজার ৯৮৭ জন। এবার ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা ২ লাখ ১৮ হাজার ২৯২ জন বেশি। এ ছাড়া মোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২ হাজার ৯৮২টি। মোট ২৯ হাজার ২৬২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এই পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

Related Content