চাকরির বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে আবারও আন্দোলন

চাকরির বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে আবারও আন্দোলন, সরকারি চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ বছরে উন্নীত করার দাবিতে সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের নেতাকর্মীরা।

সাধারণ ছাত্র পরিষদের ব্যানারে চলা এ কর্মসূচিতে ৩৫ থেকে ৪০ জন আন্দোলনকারীকে অংশ নিতে দেখা গেছে। তবে সংগঠনটির দাবি সারা দেশ থেকে আন্দোলনকারীরা তাদের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন। আন্দোলনকারীরা ৩৫, ৩৫.. বলে স্লোগান দিচ্ছেন। শনিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজুভাস্কর্যের পাদদেশে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের ব্যানারে তারা এ সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচির আয়োজন করে।

আন্দোলনের মুখপাত্র ইমতিয়াজ হোসেন বলেন: দশম জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি পরপর তিনবার সুপারিশের পরও কেন সরকার এটিকে উপেক্ষা করছেন? যে সরকার জনগণের পক্ষেই কাজ করেন, তারা কেন ২৮ লাখ তরুণ ছাত্র সমাজের এই গণদাবি অবহেলা করছেন? আমরা শান্তিপূর্ণভাবে গত সাত বছর ধরে এই আন্দোলন করে আসছি, তাই আবারো বলতে চাই দ্রুত সময়ের মধ্যে এই দাবিকে মেনে নেন এবং ৩৫ বছর বাস্তবায়ন করে দিন।

শিক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

চাকরির বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে আবারও আন্দোলন

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে সংগঠনটির আরেক সিনিয়র নেতা এম এ আলী বলেন: আমরা দীর্ঘ ৭ বছর ধরে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর বাস্তবায়ন করার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে আসছি। দ্রুত সময়ে ৩৫ বাস্তবায়ন করে আমাদের বাঁচার সুযোগ করে দিন।

এ সময় সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচিতে ঢাকাসহ সারাদেশের জেলা এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরিতে বয়স ৩৫ প্রত্যাশী শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেন। ২০১২ সাল থেকে চলছে তাদের এই আন্দোলন। একাধিকবার বিভিন্ন মহল থেকে বয়স বাড়ানোর কথা বললেও তা বাস্তবায়নের মুখ দেখেনি।

Related Content