আরও ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেবে এনটিআরসিএ

আরও ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেবে এনটিআরসিএ . বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শূন্যপদ পূরণে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে। আগামী ফেব্রুয়ারিতে তাদের নিয়োগ দেয়া হবে। এরই মধ্যে আরও ২০ হাজার পদ শূন্য হয়েছে।

এই নতুন শূন্যপদ পূরণেরও উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাদের নিয়োগ দেয়া হবে। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (NTRCA) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান এস এম আশফাক হুসেন বলেন, ‘দ্বিতীয় দফায় শিক্ষক নিয়োগের আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। বর্তমানে যাচাই-বাছাই চলছে। চলতি মাসের মধ্যে যোগ্য প্রার্থীদের মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। সেখানে কে কোন প্রতিষ্ঠানে যোগ্য বলে বিবেচিত হয়েছেন তা উল্লেখ করা হবে। ফেব্রুয়ারিতে যোগদান কার্যক্রম শুরু হবে। এ দফায় ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ পাবেন।’

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে DailyResultBD এর ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস!সাথে আছে আরো অ্যাপ অফার: - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস .সর্বমোট ১৫০ টাকা বোনাস পাবেন একজন বিকাশ গ্রাহক। এছাড়া যারা একাউন্ট খুলেছেন তারাও বিকাশ এপ ডাউনলোড করে প্রথম প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! Bkash App Download Link

NTRCA ১ হাজার ৪৮ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করেছে এনটিআরসিএ

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে সারাদেশে আরও ২০ হাজার শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে গেছে। আমরা এসব প্রতিষ্ঠানের তালিকা চেয়ে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছি। তালিকা পাওয়ার পর তা যাচাই-বাছাই করা হবে। চলতি বছরের আগস্টে নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। প্রার্থীদের আবেদন শেষে সেপ্টেম্বরের মধ্যে যোগদানের প্রক্রিয়া শেষ করা হবে।

সূত্র জানায়, তৃতীয় দফায় ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দিতে ইতোমধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা চেয়েছে এনটিআরসিএ। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে এ তথ্য চাওয়া হয়েছে। ২০১৯ সালের নভেম্বর মাস পর্যন্ত যেসব পদ শূন্য হবে তার বিষয়ভিত্তিক তালিকাও পাঠাতে বলা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানগুলোর শূন্যপদের তালিকার হার্ডকপি এনটিআরসিএ কার্যালয়ে পাঠাতে বলা হয়েছে। এছাড়া ই-মেইলেও শূন্যপদের তথ্য পাঠানো যাবে। তবে নতুন নীতিমালা অনুযায়ী নবসৃষ্ট যেসব পদে এখনও শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ হয়নি সেসব পদ শূন্য হিসেবে দেখানো যাবে না।

DailyResultBD এর শিক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন YouTube Channel

সূত্র: জাগো নিউজ

Related Content