২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ও ফলাফল

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ও রেজাল্ট নিয়ে আজকে আলোচনা করা হবে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজসমূহে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রমে ২য় পর্যায়ে প্রাথমিক আবেদন ২৬ জুন ২০১৯ তারিখ থেকে ৬ জুলাই ২০১৯ তারিখ রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট থেকে আগ্রহী প্রার্থীদের প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ করার পর প্রিন্ট করে আবেদন ফি বাবদ ৩০০/ (তিনশত) টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সংশ্লিষ্ট কলেজে ৭ জুলাই তারিখের মধ্যে অবশ্যই জমা দিতে হবে। ১ম ও ২য় পর্যায়ে প্রাথমিক আবেদনকারী প্রার্থীদের মেধা তালিকায় স্থান পেতে তাদের অবশ্যই রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স প্রিলিমিনারি (নিয়মিত) ভর্তি রেজাল্ট ১৫ জুলাই প্রকাশিত হবে। 

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোসের্র ভর্তি কার্যক্রমের আবেদনকারী প্রার্থীদের কোন ভর্তি পরীক্ষা দিতে হবে না। আবেদনকারীদের স্নাতক পর্যায়ে উত্তীর্ণ পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি কলেজে আলাদাভাবে বিষয়ভিত্তিক মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হবে। উল্লেখ্য যে, ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ২০১২- ২০১৩ শিক্ষাবর্ষে প্রণীত মাস্টার্স ১ম পর্বের নতুন সিলেবাস অনুযায়ী পাঠদান ও পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ও ফলাফল

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ও ফলাফল

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ও ফলাফল

আবেদন করতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

আবেদনের সাধারণ যোগ্যতাঃ
ক) এ ভর্তি কার্যক্রমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিন বছর মেয়াদী স্নাতক (পাস) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অথবা চার বছর মেয়াদী স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষায় পাস ডিগ্রী প্রাপ্ত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবে এবং ভর্তিচ্ছু বিষয়ে (৪০০ নম্বর সম্বলিত) ন্যূনতম ৪০% নম্বর অথবা সিজিপিএ পদ্ধতিতে ন্যূনতম জিপিএ ২.০০ থাকতে হবে।
খ) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স ১ম পর্ব (নিয়মিত/প্রাইভেট) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অথবা উক্ত প্রোগ্রামে বর্তমানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ২০১৭- ২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামে আবেদন করতে পারবে না। এছাড়াও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অন্য যে কোন শিক্ষা কার্যক্রমে বর্তমানে অধ্যয়নরত কোন শিক্ষার্থী এ ভর্তি কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। উক্ত শর্ত ভঙ্গ করে কোন শিক্ষার্থী দ্বৈত ভর্তি হলে তার উভয় ভর্তি বাতিল করার অধিকার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।
গ) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক (পাস) প্রাইভেট/সার্র্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা এ ভর্তি কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে না। তারা প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স (প্রাইভেট) প্রোগ্রামে আবেদন করতে পারবে।

ভর্তি পদ্ধতি, নম্বর বন্টন ও ফলাফলঃ
ক) ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামের ভর্তি কার্যক্রমে আবেদনকারী প্রার্থীদের স্নাতক (সম্মান)/স্নাতক (পাস) পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা প্রণয়ন করে বিষয় বরাদ্দ দেয়া হবে।
খ) একই কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর মেধাক্রম সমান হলে সেক্ষেত্রে এ সকল আবেদনকারীর মধ্যে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দিয়ে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।
গ) এ ভর্তি কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে প্রথম মেধা তালিকা, শূন্য আসন সাপেক্ষে দ্বিতীয় মেধা তালিকা, কোটা এবং রিলিজ স্লিপ এর (প্রয়োজনে একাধিক বার) মাধ্যমে সম্পন্ন করা হবে।
ঘ) সংশ্লিষ্ট কলেজ User ID, Password ও OTP ব্যবহার করে ভর্তির বিষয়ওয়ারী ফলাফল দেখতে পারবে।প্রার্থীরা ভর্তি সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে/ এসএমএস এর মাধ্যমে (nu<space>atmp<space>roll no) টাইপ করে ১৬২২২ নম্বরে send করতে হবে) / কলেজ থেকে ফলাফল জানতে পারবে।

আবেদন ফরম এর সাথে সংশ্লিষ্ট কলেজে যে সকল কাগজপত্র জমা দিতে হবেঃ আবেদনকারীকে প্রিন্ট করা প্রাথমিক আবেদন ফরমটির নির্ধারিত স্থানে স্বাক্ষর করতে হবে। এই আবেদন ফরমের সংগে প্রার্থীকে স্নাতক (পাস)/ স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র, রেজিস্টেশন কার্ডের সত্যায়িত কপি ও প্রাথমিক আবেদন ফি বাবদ ৩০০/- (তিনশত) টাকাসহ সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অবশ্যই জমা দিতে হবে। প্রাথমিক আবেদন ফরমটির দ্বিতীয় অংশ সংশ্লিষ্ট কলেজ অধ্যক্ষ/দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকের স্বাক্ষর ও সীলসহ প্রার্থীকে ফেরত দিবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজসমূহে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রমে ২য় পর্যায়ে প্রাথমিক আবেদন ২৬ জুন ২০১৯ তারিখ থেকে ৬ জুলাই ২০১৯ তারিখ রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট থেকে আগ্রহী প্রার্থীদের প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ করার পর প্রিন্ট করে আবেদন ফি বাবদ ৩০০/ (তিনশত) টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সংশ্লিষ্ট কলেজে ৭ জুলাই তারিখের মধ্যে অবশ্যই জমা দিতে হবে। ১ম ও ২য় পর্যায়ে প্রাথমিক আবেদনকারী প্রার্থীদের মেধা তালিকায় স্থান পেতে তাদের অবশ্যই রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) কোসের্র ভর্তি কার্যক্রমের আবেদনকারী প্রার্থীদের কোন ভর্তি পরীক্ষা দিতে হবে না। আবেদনকারীদের স্নাতক পর্যায়ে উত্তীর্ণ পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি কলেজে আলাদাভাবে বিষয়ভিত্তিক মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হবে। উল্লেখ্য যে, ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ২০১২- ২০১৩ শিক্ষাবর্ষে প্রণীত মাস্টার্স ১ম পর্বের নতুন সিলেবাস অনুযায়ী পাঠদান ও পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।

আবেদনের সাধারণ যোগ্যতাঃ
ক) এ ভর্তি কার্যক্রমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিন বছর মেয়াদী স্নাতক (পাস) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অথবা চার বছর মেয়াদী স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষায় পাস ডিগ্রী প্রাপ্ত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবে এবং ভর্তিচ্ছু বিষয়ে (৪০০ নম্বর সম্বলিত) ন্যূনতম ৪০% নম্বর অথবা সিজিপিএ পদ্ধতিতে ন্যূনতম জিপিএ ২.০০ থাকতে হবে।
খ) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স ১ম পর্ব (নিয়মিত/প্রাইভেট) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অথবা উক্ত প্রোগ্রামে বর্তমানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ২০১৭- ২০১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামে আবেদন করতে পারবে না। এছাড়াও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অন্য যে কোন শিক্ষা কার্যক্রমে বর্তমানে অধ্যয়নরত কোন শিক্ষার্থী এ ভর্তি কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। উক্ত শর্ত ভঙ্গ করে কোন শিক্ষার্থী দ্বৈত ভর্তি হলে তার উভয় ভর্তি বাতিল করার অধিকার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।
গ) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক (পাস) প্রাইভেট/সার্র্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা এ ভর্তি কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে না। তারা প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স (প্রাইভেট) প্রোগ্রামে আবেদন করতে পারবে।

ভর্তি পদ্ধতি, নম্বর বন্টন ও ফলাফলঃ
ক) ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স (নিয়মিত) প্রোগ্রামের ভর্তি কার্যক্রমে আবেদনকারী প্রার্থীদের স্নাতক (সম্মান)/স্নাতক (পাস) পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা প্রণয়ন করে বিষয় বরাদ্দ দেয়া হবে।
খ) একই কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর মেধাক্রম সমান হলে সেক্ষেত্রে এ সকল আবেদনকারীর মধ্যে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দিয়ে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।
গ) এ ভর্তি কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে প্রথম মেধা তালিকা, শূন্য আসন সাপেক্ষে দ্বিতীয় মেধা তালিকা, কোটা এবং রিলিজ স্লিপ এর (প্রয়োজনে একাধিক বার) মাধ্যমে সম্পন্ন করা হবে।
ঘ) সংশ্লিষ্ট কলেজ User ID, Password ও OTP ব্যবহার করে ভর্তির বিষয়ওয়ারী ফলাফল দেখতে পারবে।প্রার্থীরা ভর্তি সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে/ এসএমএস এর মাধ্যমে (nu<space>atmp<space>roll no) টাইপ করে ১৬২২২ নম্বরে send করতে হবে) / কলেজ থেকে ফলাফল জানতে পারবে।

Read More- প্রিলিমিনারি টু মাস্টার্স সিলেবাস
আবেদন ফরম এর সাথে সংশ্লিষ্ট কলেজে যে সকল কাগজপত্র জমা দিতে হবেঃ

National University NU masters Preliminary 1st Year Regular Admission Notice And Result 2017-2018 Session. আবেদনকারীকে প্রিন্ট করা প্রাথমিক আবেদন ফরমটির নির্ধারিত স্থানে স্বাক্ষর করতে হবে। এই আবেদন ফরমের সংগে প্রার্থীকে স্নাতক (পাস)/ স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র, রেজিস্টেশন কার্ডের সত্যায়িত কপি ও প্রাথমিক আবেদন ফি বাবদ ৩০০/- (তিনশত) টাকাসহ সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অবশ্যই জমা দিতে হবে। প্রাথমিক আবেদন ফরমটির দ্বিতীয় অংশ সংশ্লিষ্ট কলেজ অধ্যক্ষ/দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকের স্বাক্ষর ও সীলসহ প্রার্থীকে ফেরত দিবে।

Related Content