একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি আবেদন করবেন যেভাবে

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি আবেদন করবেন যেভাবে সেই নিয়ে আজকে ডেইলি রেজাল্ট বিডতে আলোচনা করা হবে। একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে ১১ মে ২০১৯ থেকে। অনলাইন বা এসএমএস এর মাধ্যমে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করা যাবে। এই আবেদনের মাধ্যমে কলেজ ও মাদরাসায় ভর্তির আবেদন করা যাবে।

অনলাইন বা এসএমএস এর মাধ্যমে আবেদনের ক্ষেত্রে প্রথমে আবেদন ফি পরিশোধ করতে হবে।

অনলাইন ও এসএমএসে ভর্তি আবেদন করবেন যেভাবে:

বিকাশ একাউন্টে ফ্রি ১৫০ টাকা বোনাস নিয়ে নিন !!নতুন বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজের একাউন্ট খুলুন মিনিটেই, শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে। কোথাও যেতে হবে না! আর অ্যাপ থেকে একাউন্ট খুলে প্রথম লগ ইনে পাবেন ১০০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস! - প্রথম বার ২৫ টাকা রিচার্জে ৫০ টাকা ইনস্ট্যান্ট বোনাস Bkash App Download Link

অনলাইনে আবেদন:

www.xiclassadmission.gov.bd এ ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। একজন সর্বোচ্চ ১০টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে পারবেন। আবেদন ফি ১৫০ টাকা। এই ফি শিক্ষার্থীকে তার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ড, পাসের সাল উল্লেখ করে এসএমএস দিয়ে টেলিটক/বিকাশ/শিওরক্যাশ/ গ্রামীণফোনের মাধ্যমে জমা দিতে হবে।
এক্ষেত্রে টেলিটক সিম থেকে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে CAD স্পেস WEB স্পেস পরীক্ষা পাসের Board এর নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস পরীক্ষার রোল স্পেস পরীক্ষা পাসের বর্ষ লিখে ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে। ফিরতি এসএমএস এ আবেদনকারীর নাম ও আবেদন ফি বাবদ ১৫০ কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন কোড দেওয়া হবে। ফি দিতে সম্মত থাকলে ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে CAD স্পেস YES স্পেস PIN স্পেস CONTACT NUMBER (বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনঃনিবন্ধিত মোবাইল নম্বর) লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফি সঠিকভাবে জমা হলে প্রার্থীর মোবাইলে নিশ্চিতকরণের একটি Transaction ID সম্বলিত SMS যাবে।

টেলিটক/বিকাশ/শিওরক্যাশ/ গ্রামীণফোনের মাধ্যমে আবেদন ফি ১৫০ টাকা জমা দেওয়ার পর আবেদনকারীকে নির্ধারিত website- এ www.xiclassadmission.gov.bd Apply Online -এ ক্লিক করতে হবে। এরপর প্রদর্শিত তথ্য ছকে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর, বোর্ড ও পাসের সন এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে সঠিকভাবে এন্ট্রি করতে হবে।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি আবেদন করবেন যেভাবে

এরপর প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষ হলে আবেদনকারী একটি ফরম পাবে, সেটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। একইভাবে সর্বনিম্ন ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে প্রার্থীকে। অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৫টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০ টাকা আবার ১০টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০ টাকা চার্জ করবে।

এসএমএসে আবেদন

এসএমএস এর মাধ্যমে আবেদন শুধু টেলিটক প্রি-পেইড সংযোগ থেকে সর্বোচ্চ ৫টি কলেজে আবেদন করা যাবে। এজন্য ফি ১২০ টাকা। এসএমএস এর মাধ্যমে ৫টি প্রতিষ্ঠানে আবেদনের পর আরো ৫টি প্রতিষ্ঠানে আবেদন করতে চাইলে তা করতে হবে অনলাইনে।

মোবাইলে আবেদন করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে এভাবে টাইপ করতে হবে- CAD, ভর্তিচ্ছু কলেজ/মাদরাসার EIIN, ভর্তিচ্ছু গ্রুপের নামের প্রথম দুই অক্ষর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রোল নম্বর, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের সাল, এসএসসি/সমমান পরীক্ষা পাসের রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ভর্তিচ্ছু শিফটের নাম ভার্সন/কোটার নাম (যদি থাকে)। এরপর মেসেজটি send করতে হবে ১৬২২২ নম্বরে। ফিরতি মেসেজে ফি বাবদ ১২০ টাকা কেটে রাখার সম্মতি চাওয়া হবে। সম্মতি দিয়ে এসএমএস দিলে প্রার্থীর মোবাইলে নিশ্চিতকরণের একটি Transaction ID সম্বলিত SMS যাবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া ১২ মে থেকে শুরু হয়ে ২৩ মে পর্যন্ত চলবে। যারা পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করবে তাদেরও এই সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে। তবে পুনঃনিরীক্ষণের পর যাদের ফলাফল পরিবর্তন হবে তারা ৩ থেকে ৪ জুনের মধ্যে আবেদন করতে পারবে।

আবেদন প্রক্রিয়া শেষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিতদের তালিকা ১০ জুন প্রকাশ করা হবে। এসএমএস ও স্ব-স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বোর্ডে তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১১ থেকে ১৮ জুনের মধ্যে শিক্ষার্থীদের মনোনয়নপ্রাপ্ত কলেজে নিশ্চায়ন করতে হবে। অন্যথায় আবেদন বাতিল হবে।

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে ১ জুলাই থেকে। যেসব শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নির্বাচিত হবে না তারা ১৯ থেকে ২০ জুনের মধ্যে ফের আবেদন করতে পারবে। কোনো ধরনের ফি দেওয়া ছাড়াই তাদের আবেদনে নতুন কলেজ সংযোজন ও বিয়োজন করতে পারবে। একই সময়ের মধ্যে যারা আবেদন করবে না বা ভর্তির নিশ্চয়তা সম্পন্ন করবে না তারাও আবেদন করতে পারবেন।

Related Content